এবার পৃথিবীর ছাদে আমি উত্তোলন করেছি বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা - বরিশালের খবর-Barishaler Khobor

বাংলাদেশ, ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২

এবার পৃথিবীর ছাদে আমি উত্তোলন করেছি বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা - বরিশালের খবর-Barishaler Khobor

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিচ্ছেন: বাণিজ্যমন্ত্রী একযোগে সারাদেশে সিরিজ বোমা হামলার ১৭ বছর পুরনো এবং জরাজীর্ণ আবাসন সমস্যা সমাধানে শেবাচিম শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ দেশ একটু ভালো অবস্থানের দিকে গেলে চক্রান্ত শুরু হয় : প্রধানমন্ত্রী নৌ পথে অতিরিক্ত ভাড়ায় ক্ষুব্ধ যাত্রীরা : বেশী ভাড়া আদায়ের অভিযোগ বরগুনায় পুলিশের এতটা বাড়াবাড়ি ঠিক হয়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পৌরসভার মাটির সড়ক পাকা করনে ধান গাছ লাগিয়ে প্রতিবাদ সেই ক্রেন দিয়েই সরানো হলো গার্ডার, গাড়ি থেকে বেরোল ৫ লাশ নতুন প্রজন্মের হাত ধরেই স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা পাবে : সাদিক আবদুল্লাহ চকবাজারে আগুনে ৬ জনের মৃত্যু: ফায়ার সার্ভিস


এবার পৃথিবীর ছাদে আমি উত্তোলন করেছি বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা

প্রকাশ: ২৮ জুন, ২০২২ ১১:১৯ : অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক : প্রিয় বাংলাদেশ, দীর্ঘ জার্নি সংগ্রাম শেষে বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা নিয়ে আমার পূর্ণ হলো ১৫৫ দেশ ভ্রমণ। তাজিকিস্তানে ১৫৫ দেশ ভ্রমণে এবার পৃথিবীর ছাদে আমি উত্তোলন করেছি বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা- অনেক জার্নির কষ্ট নিয়েও আমার মুখে ছিলো বিজয়ের হাসি, চোখে ছিলো ফোঁটা অশ্রু। পামির মালভূমির পৃথিবীর ছাদে পতাকা উত্তোলনের স্বপ্ন পূরণ হলো আমার। আর আফগানিস্তান এবং তাজিকিস্তানের করিডোরের মধ্য দিয়ে আফগানিস্তানের এক হাজার কিলোমিটার ভ্রমনের সেই অপরূপ রূপ আমি কোনদিন ভুলবো না।

পৃথিবীতে বিধাতার টুকরো স্বর্গ যেন ছড়িয়ে রয়েছে পামির মালভূমিতে। মাত্র ৫০ মিটার দূর থেকে আফগানিস্তানকে দেখতে পাড়ার স্বপ্নপূরণ ছিলো আমার জীবনের আরেকটি চ্যালেঞ্জিং অধ্যায়। কোথাও কোথাও এত এত উঁচু পাহাড়, পাথর, কংকর পথ, ভাঙ্গা রাস্তা, কাঠের পাটাতন দিয়ে ভ্রমণ করতে হয়েছে- বারবার যেন আমি মৃত্যুর কোল থেকে ফিরে এসেছি- তবুও বুকে সাহস আর আল্লাহর নাম নিয়ে আমি পাড়ি দিয়েছি এই দীর্ঘ পথ।

দীর্ঘ ২১ বছরের এ সংগ্রাম এতটা সহজ ছিলো না আমার জন্য। এশিয়া থেকে ইউরোপ, পূর্ব আফ্রিকা থেকে পশ্চিম আফ্রিকা, দক্ষিণ আমেরিকা থেকে ওশেনিয়ার বেশিরভাগ দেশেই সড়ক পথে ভ্রমণের কষ্ট, উঁচু-নিচু দুর্গম আর পাহাড়ি পথের ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা, কখনো না খাওয়ার কষ্ট, পাহাড়ি পথের কার্ফু, গুলির মুখোমুখি হওয়া, সর্বোচ্চ কখনো ১৬ হাজার ফুট উচ্চতায়, কখনো ১৪২০০ উচ্চতায় শ্বাসকষ্টে মরতে মরতে বেঁচে যাওয়া সবই যেন আমার জীবন এখন মিরাকল ভাবে বেঁচে থাকার স্মৃতি হয়ে মিশে আছে আমার এ বিশ্ব ভ্রমণের সাথে। তবু বলছি বর্ণিল এই পৃথিবীকে দেখার জন্য আমি যেকোনো সংগ্রাম করছি। বিধাতা নিশ্চয়ই আমার বাকি কয়েকটি দেশে যাবার স্বপ্ন পূরণ করবেন লাল সবুজের পতাকা হাতে।

আমি শুধু কোন একটি দেশ ছুঁয়ে ফিরে আসি না, আমি সে দেশের আদ্যোপান্ত ঘুরে দেখার চেষ্টা করি এটাই আমার অভিপ্রায়। পৃথিবীর কাছে আমি অনেক ক্ষুদ্র, কিন্তু পৃথিবীর মতোই আমার স্বপ্ন অনেক বড়। যে স্বপ্ন আমাকে শিখিয়েছে কিভাবে কষ্টের মাঝে সংগ্রাম করে বেঁচে থাকতে হয়, কিভাবে স্বপ্নকে জয় করে সামনে এগিয়ে যেতে হয়‌। আর পৃথিবী ভ্রমণ আমাকে শিখিয়েছে হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সব কিছু মিলে আমরা সবাই একই পৃথিবীর মানুষ এবং একই আকাশের নিচে বসবাসকারী মানবজাতি- এই পৃথিবী আমাদের সীমানাবিহীন ঘর।

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

সকল নিউজ